শুক্রবার, ২ মে, ২০১৪

বৃষ্টির তথ্য সংগ্রহ করবে স্মার্ট ছাতা!

এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ইউরোপিয়ান জিওসায়েন্সেস ইউনিয়ন (ইজিইউর) বার্ষিক সভায় এ প্রযুক্তির প্রোটোটাইপ দেখান ড. হাট। ছাতার ক্যানভাসের নিচে ব্যবহার করা হয়েছে পেইজো সেন্সর। এতে ছাতায় বৃষ্টির ফোটা পড়লে যে ভাইব্রেশন হয় তা পরিমাপ করা যাবে।
এ তথ্য ব্লুটুথের মাধ্যমে ফোন থেকে পাঠিয়ে দেবে কম্পিউটারে কিংবা ক্লাউডভিত্তিক ডেটা স্টোরে। এতে শহরের বিভিন্ন প্রান্তের বৃষ্টিপাতের খবর জানা যাবে। অতিবৃষ্টির ফলে বন্যার আশঙ্কা থাকলেও আগাম সতর্কতা পাওয়া যাবে।
এ সম্পর্কে গবেষক ড. হাট জানান, আবহাওয়ার তথ্য জানাতে আমাদের রয়েছে রেডার ও স্যাটেলাইট। কিন্তু বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি কতটুকু হয় তা পরিমাপ করা ব্যয়বহুল।
যদিও এজেন্সিগুলো সংখ্যায় কমে যাচ্ছে এবং এতে মানুষের অপারেশনাল ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট নিয়ে বা হাইড্রোলজি নিয়ে গবেষণা করতে পারে না। কারণ তারা এ জন্য প্রয়োজনীয় ডেটা সংগ্রহ করতে পারে না-- বিবিসিকে বলেন ড. হাট।
ভবিষ্যতে এ প্রযুক্তি নিয়ে আসার কথা জানিয়েছেন হাট। এতে বৃষ্টির সময় ছাতা খুললেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে তথ্য চলে যাবে কম্পিউটারে। এভাবে হাজার হাজার মানুষ যখন এ ছাতা ব্যবহার করবে তখন শহরের বৃষ্টিপাত সম্পর্কে তথ্য একত্রিত হবে। ফলে বিজ্ঞানসম্মত তথ্য পাওয়া যাবে। যা জলবিদ্যা গবেষণাকেও এগিয়ে নিয়ে যাবে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন