Header Ads

২৬ মার্চ উপলক্ষে ‘ইতি বাংলাদেশ’ নামে অ্যাপ উন্মুক্ত

প্রত্যেক জাতির জন্য তাদের ইতিহাস একটি অমূল্য সম্পদ। আর এই ইতিহাসের সূচনা হয় একটি বিশেষ মুহুর্তকে কেন্দ্র করে। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগের পর পূর্র্ব পাকিস্থান নামে এক ভূখন্ডের জন্ম নেয়। পরবর্তীতে অমর একুশে ফেব্রুয়ারি, স্বাধীকার আন্দোলন ও ১৯৭১ সালে দীর্ঘ ৯ মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে জন্ম নেয় বাংলাদেশ নামে এক স্বাধীন রাষ্ট্রের। এজন্যই ১৯৪৭ সাল থেকে ১৯৭১ সালকে বাংলাদেশের মূল ইতিহাস হিসেবে বিবেচনা করা হয়।
স্বাধীনতার ৪৩ বছর পেরিয়ে ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের এই অনন্য ইতিহাস তরুণ প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে ‘ইতি বাংলাদেশ’ নামে মোবাইল অ্যাপ এনেছে অ্যাপ্লিকেশন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ‘বিজনেস অ্যাপ স্টেশন’।
অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণের এই অ্যাপটিতে ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ ভারতের বিভক্তি থেকে শুরু করে ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মুক্তি ও স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের ইতিহাস তুলে ধরা হয়েছে। তারিখ ও সাল অনুযায়ী টাইমলাইন আকারে ৬৬টি ঘটনার ছবি ও তথ্য তুলে ধরা হয়েছে অ্যাপটিতে। বামপাশের মেনুর মাধ্যমে সাল ও তারিখ নির্বাচন করেও এসব ঘটনা ও ছবি সহজেই দেখা যাবে।
এছাড়া জর্জ হ্যারিসনের কনসার্ট ফর বাংলাদেশের সর্ম্পকে অ্যালবাম, মুক্তিযুদ্ধের তথ্যচিত্র, ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষন, মুক্তিযুদ্ধের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস, মুক্তিযোদ্ধাদের শপথ গ্রহণ, বীরাঙ্গনা বাংলাদেশ নিয়ে তথ্যচিত্র, অসহযোগ আন্দোলন, পাকবাহিনীর আত্মসমর্পনসহ ইউটিউবে প্রকাশিত মোট ২২টি ভিডিও অ্যাপটিতে যুক্ত করা হয়েছে।
অ্যাপটি সর্ম্পকে বিজনেস অ্যাপ স্টেশনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও অ্যাপ আর্কিটেক্ট মাহমুদ হাসান সানি বলেন, সময়ের চাহিদায় এখন প্রায় সকলের হাতেই স্মার্টফোন পৌছে গেছে। তরুণ প্রজন্মকে ডিজিটাল উপায়ে স্মার্টফোনে অ্যাপের মাধ্যমে দেশের সঠিক ইতিহাস জানাতে এই অ্যাপ তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হয়। প্রাথমিকভাবে অ্যান্ড্রয়েডের জন্য আপটি ছাড়া হলেও শিগগিরই আইফোনের (আইওএস প্লাটফর্ম) জন্য অ্যাপটি প্রকাশ করা হবে। আগ্রহীরা গুগলের প্লে স্টোর থেকে ‘ইতি বাংলাদেশ’ অ্যাপটি বিনামূল্যে ডাউনলোড ও ব্যবহার করতে পারবেন। অ্যাপটির ডাউনলোড লিংক।

কোন মন্তব্য নেই

konradlew থেকে নেওয়া থিমের ছবিগুলি. Blogger দ্বারা পরিচালিত.