মঙ্গলবার, ১৫ এপ্রিল, ২০১৪

বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করলো অ্যালকাটেল

বাংলাদেশে দীর্ঘবিরতির পর আবারও এসেছে ফ্রান্সের স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যালকাটেল।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর লেকশোর হোটেলে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে বিশ্বখ্যাত মোবাইল ব্র্যান্ড অ্যালকাটেল। 

অনুষ্ঠানে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব খলিলুর রহমান, অ্যালকাটেলের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট (এশিয়া প্যাসিফিক) এলবার্ট ওং, এশিয়া প্যাসিফিক রিজিওনের মার্কেটিং ডিরেক্টর মাইকেল চেন, অ্যালকাটেল বাংলাদেশ-ভারতের প্রধান প্রবীণ ভ্যালেচা, ইরাসেল লিমিটেডের কান্ট্রি ম্যানেজার শিজু চেরুভালাথ উপস্থিত ছিলেন।   

দেশের বাজারে এরই মধ্যে অ্যালকাটেল ওয়ানটাচ ১৩টি মডেলের ফোন বাজারে এনেছে যার কয়েকটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এই হ্যান্ডসেটগুলোর দাম এক হাজার ২৪৯ টাকা থেকে শুরু হয়ে সর্বোচ্চ ৩৭ হাজার ৪৯৯ টাকা পর্যন্ত। এছাড়াও আরো বেশ কয়েকটি স্মার্টফোন শিগগিরই বিশ্ববাজারে অবমুক্ত হবার দিন থেকেই বাংলাদেশেও পাওয়া যাবে।    

অ্যালকাটেল স্মার্টফোন থ্রিজি ব্যাবহারের সর্বোচ্চ সুবিধা দিতে সক্ষম। এছাড়া ফিচার এবং বেসিক ফোন বাজারে এনেছে অ্যালকাটেল। যেগুলো গ্রাহকের সব ধরনের চাহিদা পূরণে সক্ষম। অ্যালকাটেল ওয়ানটাচ স্মার্টফোন অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের একটি বড় বাজার দখল করে আছে। 

বাংলাদেশে অ্যালকাটেলের বিপণনকারী ‘ইরাসেল লিমিটেড’ ইতোমধ্যে রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিংমলে ‘ওয়ানটাচ কেয়ার’ নামে সার্ভিস সেন্টার এবং যমুনা ফিউচার পার্কের ৫ম তলায় ‘অ্যালকাটেল ওয়ানটাচ’ স্টোর চালু করেছে।

বিপণনব্যবস্থার মানোন্নয়ন ও সরবরাহ ব্যবস্থা নিরঙ্কুশ রাখতে বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে অ্যালকাটেলের পক্ষ থেকে। 

গেল বছর বহু প্রত্যাশিত তৃতীয় প্রজন্মের (থ্রিজি) মোবাইল ফোন সার্ভিস চালু হবার পরপরই ‘অ্যালকাটেল ওয়ানটাচ’ তাদের বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় ফোনগুলো এদেশে বাজারজাত শুরু করে। অ্যালকাটেল ওয়ানটাচ এদেশের মানুষের হাতে সঠিক দামে সবার হাতে থ্রিজি সেবার সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে চায়।

সনি এরিকসন, স্যামসাং কিংবা এইচটিসির পর বিশ্বে ‘অ্যালকাটেল’ স্মার্টফোনের রয়েছে ব্যাপক চাহিদা এবং বাংলাদেশেও স্মার্টফোনের বিশাল চাহিদা রয়েছে যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। 

এলবার্ট ওং বলেন,  গ্রাহকদের কাছে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় এ ব্র্যান্ডটি পৌঁছে দেওয়ার এই মুহূর্তটি আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের। মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীরা অ্যালকাটেলের কাছে যেমনটি আশা করে সেই সেরা ইউজার ইন্টারফেস, ডিজাইন, শক্তিশালী ডিভাইস এবং প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে সেবা আমরা তাদের দেব। এদেশে অ্যালকাটেলের শুরু থেকেই আমাদের গ্রাহকের চাহিদা, সামর্থ্য এবং ব্যবহৃত ডিভাইসের ভিত্তিতে আমরা বিভিন্ন ধরনের ফোন বাজারজাত করে আসছি। এখানে আমরা স্মার্টফোন, ফিচার ফোন এবং বেসিক ফোনসহ এসব ফোনের প্রিমিয়াম সব এক্সেসরিজ এনেছি। যা আমাদের গ্রাহকদের চাহিদা মেটাতে সম্পূর্ণভাবে সক্ষম হবে বলে আমরা মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি।

‘আজ এই শুভলগ্নে আমরা সকলকে আমাদের পাশে থাকার জন্যে আহবান জানাই। শুভ হোক অ্যালকাটেল এর এই দীর্ঘ পথচলা’ বলেন এলবার্ট ওং। 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন