মঙ্গলবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৩

ড্রোন দিয়ে অনলাইনে কেনা পণ্য আকাশ পথে বাসায় পৌঁছে দেবে অ্যামাজন!


 

বিশ্ব বিখ্যাত অনলাইন বিক্রয় প্রতিষ্ঠান অ্যামাজনের প্রধান Jeff Bezos জানিয়েছেন ভবিষ্যতে অ্যামাজন তাদের অর্ডার কারীদের বাসার সামনে পণ্য পৌঁছে দিতে রিমোট কন্ট্রোল ড্রোন ব্যবহার করবেন।
ব্যবহারের ঘোষণা দিয়েছে একই সাথে তারা এ ধরণের ড্রোনে করে পণ্য পরিবহণের চিত্র ধারন করে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে অ্যামাজন থেকে ওয়ার্ডার করা পণ্য ড্রোনে করে মাত্র ৩০ মিনিটে গ্রাহকের বাড়ির দরজার সামনে সরবরাহ করা হচ্ছে।
এদিকে ঘোষণা দিলেও আমেরিকার এই বিখ্যাত অনলাইন খুচরা বিক্রয় কোম্পানির পণ্য সরবরাহে ড্রোন ব্যবহারের আনুষ্ঠানিক ছাড়পত্র পেতে এখনও দেরি আছে ফলে এটি সরাসরি গ্রাহক সেবায় আসতে আরও ৩ থেকে ৪ বছর সময় লাগবে বলেই মনে করা হচ্ছে।
অ্যামাজন কর্তৃপক্ষের প্রচারিত ভিডিওতে দেখা যায় একটি ছোট উড়োযান যাতে ৮টি ছোট হেলিকপ্টারের পাখা লাগানো এবং ৪টি পায়া লাগানো, সম্পূর্ণ ড্রোন ২.৫ কেজি পণ্য পরিবহণ করতে পারে। এটি ১০ মাইল দূরতে মাত্র ৩০ মিনিটের মাঝে উল্লেখ্য ওজনের পণ্য পৌঁছে দিতে সক্ষম।
ড্রোনের নিচের দিকে একটি প্লাস্টিকের কন্টেনার থাকবে এবং তাতে অ্যামাজন সাপ্লাই কর্মীরা অর্ডার করা পণ্য দিয়ে দিবে। নির্দেশনা অনুযায়ী নির্দিষ্ট গ্রাহকের বাড়ির সামনে চলে যাবে অ্যামাজনের পাঠানো পণ্য এবং ড্রোন।
Jeff Bezos বলেন, “এটি অনেক পরিবেশ বান্ধব একই সাথে ট্রাফিক সমস্যা কমাতেও এই প্রযুক্তি অনেক সাহায্য করবে।”
এদিকে আমেরিকার ফেডারেল ব্যুরো অব এভিয়েশান এর প্রধান Michael Huerta জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত প্রায় ৭,৫০০ টি ক্ষুদ্র আকৃতির ড্রোন আমেরিকার আকাশে পণ্য পরিবহণ সহ বিভিন্ন কাজে ব্যবহার হওয়ার জন্য অপেক্ষায় আছে, আশা করা যায় বছর চারেকের মাঝেই এসব ড্রোন মার্কিন আকাশে দেখা যাবে।
যদি সত্যি এধরণের পণ্য সরবরাহ নিশ্চিত হয় তবে Wal Mart সহ পিজা সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান সমূহ এর থেকে বেশি উপকৃত হবে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন